আতিয়া মহলের রহস্যময়ী কে এই নারী

Atiya moholআতিয়া মহলে সেনা অভিযানের পর থেকে কেয়ারটেকাররূপী রহস্যময়ী এক নারীকে নিয়ে জোর আলোচনা চলছে। ওই নারীকে কেউ চেনেন চাচি হিসেবে। আবার কেউ চেনেন রুজিনার মা হিসেবে। তবে আতিয়া মহলের বাসিন্দারা সবাই তাকে চাচি বলেই জানেন।

আতিয়া মহলের মালিক উস্তার আলীর আত্মীয় হিসেবেও পরিচিত এই নারীর কাজ ছিল ভাড়াটেদের কাছ থেকে মাসিক ভাড়া আদায় করা। তার আসল নাম মিনারা বেগম। সে সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার রিফাত আলীর স্ত্রী। তার ভোটার আইডি নং ৯১৯৬২২৫৩৮২৭৪৩। তার এক মেয়ের নাম রুজিনা বেগম।

আতিয়া মহলের জঙ্গি আস্তানায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানের পর থেকে এই চাচিকে নিয়েই নানা রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। ভবনের মালিক উস্তার আলী মিনারা বেগমকে নিয়ে একেক সময় একেক রকম কথা বলছেন। কখনও কখনও বিভ্রান্তিকর তথ্য দিচ্ছেন।

উস্তার আলী বলছেন, ‘মিনারা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।’

কিন্তু থানার ওসি খায়রুল ফজলের কাছে মিনারার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘মিনারা বেগম উস্তার আলীর কাছে রয়েছেন।’

এরপর উস্তার আলীর কাছে ফের জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘মিনারা সেনাবাহিনীর কর্মকর্তাদের জিজ্ঞাসাবাদের পর থেকে কোথায় আছে জানি না।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে উস্তার আলী বলেন, ‘২০০৪ সালে আতিয়া মহল নির্মাণের পর মিনারা বেগমকে থাকার জন্য একটি ইউনিট দেয়া হয়। আমার বাবা আসদ্দর আলীর সঙ্গে মিনারার স্বামী রিফাত আলীর সুসম্পর্ক ছিল। ১৪ বছর থেকে তিনি আমাদের এখানে থাকেন।

জঙ্গি আস্তানা পাঁচতলা ভবন আতিয়া মহলের দ্বিতীয় তলার বাসিন্দা নজরুল ইসলাম জানান, চাচি ভাড়া আদায় ছাড়াও আতিয়া মহল দেখাশোনা করতেন।