ঢাকা, শনিবার, সন্ধ্যা ৬:৩৯ মিনিট, তারিখ: ৯ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ২৩শে মার্চ, ২০১৯ ইং, ১৭ই রজব, ১৪৪০ হিজরী
সৌদিতে ভোট যুদ্ধে বিজয়ী ১৭ নারী | deshnews.net

deshnews.net

সৌদিতে ভোট যুদ্ধে বিজয়ী ১৭ নারী

ডিসেম্বর ১৪
অপরাহ্ণ ০২:১১ সোমবার ২০১৫

1আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সৌদি আরবের ইতিহাসে প্রথমবারের মত মেয়েরা নির্বাচনে অংশ নেয়ার পর অন্তত ১৭ জন নারী পৌরসভা কাউন্সিল আসনে জয় লাভ করেছেন।

এই প্রথমবার দেশটির নারীরা কোনো পাবলিক অফিসের হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পেরেছে।

নির্বাচনে কাউন্সিল আসনগুলোতে প্রায় ৬০০০ পুরুষ ও ১০০০ মত নারী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

রিয়াদের মেয়র ইবরাহিম আল সুলতান বলেন, সৌদি আরবের রাজনৈতিক জীবনে মেয়েরা যে অবদান রাখবেন তাকে তিনি স্বাগত জানাচ্ছেন।

কর্মকর্তারা বলছেন, মোট এক লাখ ৩০,০০০ মহিলা এবার ভোট দিয়েছেন দেশটিতে।

আর পুরুষ ভোটার ছিলেন সাড়ে ১৩ লাখ।

গত শনিবার দেশটিতে ভোট অনুষ্ঠিত হয়। রবিবার ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এতে মক্কা, জেদ্দা, ইহসা, আল-জউফ ও তোবুক এলাকায় ১৭ নারী প্রাথমিকভাবে বিজয়ী হয়েছেন।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের জানুয়ারিতে মারা যান সৌদি বাদশা আবদুল্লাহ। রাজা থাকাকালীনই তিনি মেয়েদের ভোট দেওয়ার অধিকার দিয়েছিলেন।

দেশটিতে মন্ত্রিসভার পরামর্শদাতা হিসেবে কাজ করে ‘শুরা কাউন্সিল’। সেই সংগঠনে আবদুল্লাহই প্রথম ৩০ জন মহিলাকে নিয়োগ করেন।

সৌদি বাদশা আবদুল্লাহর দেখানো পথে প্রথম নিজেদের গণতান্ত্রিক অধিকারে পুরুষের সঙ্গে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করলেন সৌদি মহিলারা।

আর সেই ভোটে জয়ীদের তালিকায় প্রথমবারেই যে মহিলারা এমন সাফল্য পাবেন, তা ভাবতে পারেননি কেউই।

সৌদি সংবাদমাধ্যম প্রথমে জানায়, মক্কার প্রথম মহিলা কাউন্সিলর হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন সালমা বিন্ত হিজাব আল-ওতেইবি নামে এক মহিলা প্রার্থী। এরপর সময় যত এগিয়েছে, জয়ী মহিলা প্রার্থীদের সংখ্যাটাও ক্রমশ বেড়েছে।

এখন পর্যন্ত প্রাথমিকভাবে ভোটের যে ফল প্রকাশ হয়েছে, তাতে দেখা যাচ্ছে, সালমাসহ অন্তত ১৭ জন মহিলা প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। সালমা ছাড়া জয়ীদের মধ্যে রয়েছেন- ইহসাতে দুজন, জেদ্দায় দুজন, তোবুকে দুজন এবং আল-জউফে একজন।

সৌদি নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, মক্কা প্রদেশের এক প্রত্যন্ত গ্রাম মাদ্রাকা থেকে জয়ী হয়েছেন সালমা। ওই আসনে সাতজন পুরুষ এবং দুজন মহিলা প্রতিদ্বন্দ্বীর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে লড়াই করেছেন তিনি।

আবার জয়ী প্রার্থীদের তালিকায় রয়েছেন- লামা আল-সুলেমানও। সৌদি আরবের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর, জেদ্দায় আসন পেয়েছেন তিনি। পাশাপাশি, জেদ্দায় আসন পেয়েছেন রাশা হুফাইথি নামে আর এক মহিলা প্রার্থীও।

আল-জউফে জয়ী হয়েছেন হানৌফ আল-হাজিমি। ওই আসনে তিনি ১৩ জন পুরুষের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

তোবুকের কাউন্সিল আবার পেয়েছে দুই মহিলা কাউন্সিলরকে। সেখানে জয়ী হয়েছেন- মোনা এল-এমারি এবং ফাধিলা আল-আত্তাওয়ি। আর ইহসায় জিতেছেন সানা আল-হাম্মাম এবং মাসুমা আবদেলরেদা।

রক্ষণশীল এই মুসলিম দেশটিতে এবারের এই নির্বাচনকে একটি মাইলফলক হিসেবে দেখা হচ্ছে।

সৌদি আরবের রাজ পরিবার অভিজাত ধর্মীয় নেতাদের সমর্থনে মূলত দেশটিকে এখনো নিয়ন্ত্রণ করেন। সেখানে মেয়েদের বাইরে চলাফেরা এবং কাজ করার ক্ষেত্রে নানা ধরনের বিধিনিষেধ আছে।

ভোটের প্রচার চালানোর সময় মহিলা প্রার্থীদেরকে হয় পর্দার অন্তরালে থেকে ভোটারদের সঙ্গে কথা বলতে হয়েছে, নয়তো ভোট চাইতে পুরুষ প্রতিনিধি পাঠাতে হয়েছে।

সূত্র: বিবিসি, আলজাজিরা

Please follow and like us:

একই ধরণের সংবাদ

পাঠকের মন্তব্য (০)

আপনার ইমেইল একাউন্ট প্রকাশ করা হবে না
‘অবশ্যই প্রয়োজনীয়’ ক্ষেত্রসমূহ চিহ্নিত করা আছে *

ইউরোপের সংবাদ

পশ্চিমা বিশ্বকে এরদোগানের কঠোর হুঁশিয়ারি

পশ্চিমা বিশ্বকে এরদোগানের কঠোর হুঁশিয়ারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলায় নিউজিল্যান্ডকে সতর্ক করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট[…]

Please follow and like us:

ইসলামী দল/সংগঠন

টঙ্গী প্রেসক্লাবের নির্বাচন ১৮ এপ্রিল

টঙ্গী প্রেসক্লাবের নির্বাচন ১৮ এপ্রিল

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামি ১৮ এপ্রিল বৃহস্পতিবার টঙ্গী প্রেসক্লাবের কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচন অনুষ[...]

সংগঠন/কর্পোরেট সংবাদ

চট্টগ্রামের বীমা মেলায় ৩টি সম্মাননা পেল ন্যাশনাল লাইফ

চট্টগ্রামের বীমা মেলায় ৩টি সম্মাননা পেল ন্যাশনাল লাইফ

নিজস্ব প্রতিবেদক : গত ১৫ ও ১৬ মার্চ চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হল দুই ‍দিনব্যাপী বীমা মেলা। জমজমাট এই ম[...]