ঢাকা, রবিবার, রাত ১২:১৯ মিনিট, তারিখ: ৯ই আশ্বিন, ১৪২৪ বঙ্গাব্দ, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ইং, ৩রা মুহাররম, ১৪৩৯ হিজরী
সাক্ষী ছিল না, তবু গোলাম রসুল রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে বঙ্গবন্ধু হত্যার রায় দিয়েছেন : বিচারপতি সিনহা | deshnews.net

deshnews.net

সাক্ষী ছিল না, তবু গোলাম রসুল রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে বঙ্গবন্ধু হত্যার রায় দিয়েছেন : বিচারপতি সিনহা

আগস্ট ১৫
অপরাহ্ন ০৮:১০ সোমবার ২০১৬

cj_sk_sinha_8588আদালত প্রতিবেদক : প্রধান বিচারাপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহা বলেছেন, বিচার বিভাগ কোনো দিনই পিছপা হবে না এবং রাষ্ট্রের প্রতিটি ক্রান্তিলগ্নে বিচার বিভাগ এগিয়ে এসেছে। যেখানে অন্যায় দেখেছে সেখানে হস্তক্ষেপ করেছে।’

জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে সুপ্রিম কোর্ট কর্তৃক প্রথমবারের মতো রক্তদান ও বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির উদ্বোধনকালে এই মন্তব্য করেছেন তিনি।

সুপ্রিমকোর্ট প্রাঙ্গনে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আপিল ও হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতিদের পাশাপাশি আইনজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দ ও আদালতের কর্মকর্তারা এতে উপস্থিত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধুর বিষয়ে প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেন, জেল জুলুম, ছেলে, মেয়ে পরিবার আত্মীয়-স্বজন সবাইকে ছেড়ে এতো আত্মত্যাগের পরও বঙ্গবন্ধুকে কতিপয় বিপথগামী সৈন্য এরকম হত্যা করতে পারে! যাই হোক শুধু তাকে হত্যা করা হলো না, হত্যাকারীদের রক্ষার জন্য তৎকালীন সরকার ইনডেমিনিটি (দায়মুক্তি) অর্ডিনেন্স জারি করেছিল। এবং তাদেরকে পুরস্কৃত করা হয়েছিলো। এরপর এই বিচার বিভাগ তখনকার বিচার বিভাগকে অনেকে সমালোচনা করেছে। স্বৈরাচারী সরকার ইয়ে (নিয়ন্ত্রণ আরোপের চেষ্টা) করেছিলো, আমাদের সিনিয়র জাজরা তখন কিন্তু পিছপা হননি। এই কালো আইন বাতিল করলেন।

বঙ্গবন্ধু হত্যার সেই বিচারের ক্ষেত্রে বিচারকদের চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে তিনি বলেন, এখানে খেয়াল করবেন সাক্ষী ছিলো না, কত কষ্ট করে আমাদের একজন জেলা জজ মরহুম কাজী গোলাম রসুল তখনকার রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে রায় দিলেন। এরপরে হাইকোর্টে ডেথ কনফারমেশনরে জন্য প্রতিকূলতা ছিলো। এটা আমি আর বলতে চাচ্ছি না। এটার ডেট ফিক্সড করা, বেঞ্চ গঠন করা এটা একটা নাটক ছিল।

অনেক বিচারপতিই এই মামলায় বেঞ্চে অন্তর্ভুক্ত হতে চাননি উল্লেখ করে প্রধান বিচারপতি বলেন, একটা ঘটনা নিয়ে জাজেস লাউঞ্জে কনফাইন (আটকা) ছিলাম। আমাদের সাবেক প্রধান বিচারপতি উনি এদিকে কর্নপাত করেননি। জাজেস লাউঞ্জের পেছনের দরজা দিয়ে আমাদের ব্রাদার জাজেস একজন একজন করে মতামত নিচ্ছেন। কেউ রাজি ছিলেন, কেউ রাজি ছিলেন না। বিচারপতি ওয়াহহাব মিঞা এ ঘটনার সাক্ষী। এরপর বিচার সম্পন্ন হলো। আমি সৌভাগ্যবান ওই প্রক্রিয়ায় আমি একজন সদস্য ছিলাম।

দেশের ক্রান্তিলগ্নে বিচার বিভাগের ভূমিকা সম্পর্কে সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেন, বিচার বিভাগকে রাষ্ট্রের একটি অঙ্গ হিসেবে অনেকে স্বীকৃতি দিতে পিছপা হতেন। আমরা কোনোদিনই এটা প্রকাশ করিনি। প্রশাসন ও জাতীয় সংসদের পাশাপাশি বিচার বিভাগ যে একটা অঙ্গ, সেটাকে প্রকাশ করা আমাদের কর্তব্য। আজকে আপনারা খেয়াল করবেন বিচার বিভাগ শুধু বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলা না আমরা জেল হত্যা মামলারও রায় দিয়েছি। ৮ম, ৫ম, ১৩তম সংশোধনী বাতিল করে রায় দিয়েছি। শেষ পর্যন্ত ১৬তম সংশোধনী যেটা বিচারাধীন আছে সেটা নিয়ে কথা বলবো না।

১৫ আগস্ট শোক দিবসকে ঘিরে এসময় রক্তদান কর্মসূচি ও বৃক্ষরোপণ করেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা। রক্তদান কর্মসূচিতে সহায়তা করেছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়। এ সময় সুপ্রিমকোর্ট প্রশাসন ও আইনজীবীদের পাশাপাশি চার বিচারপতিও স্বেচ্ছায় রক্ত দেন।

স্বেচ্ছায় রক্ত দেওয়া বিচারপতিরা হলেন, বিচারপতি মো. রুহুল কুদ্দুস, বিচারপতি আশরাফুল কামাল, বিচারপতি ভীস্মদেব চক্রবর্তী ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবির।

একই ধরণের সংবাদ

পাঠকের মন্তব্য (০)

আপনার ইমেইল একাউন্ট প্রকাশ করা হবে না
‘অবশ্যই প্রয়োজনীয়’ ক্ষেত্রসমূহ চিহ্নিত করা আছে *

ইউরোপের সংবাদ

ইতালিতে ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা এ পর্যন্ত ২৪৭

ইতালিতে ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা এ পর্যন্ত ২৪৭

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইতালির মধ্যাঞ্চলে গতকাল বুধবারের শক্তিশালী ভূমিকম্পের ঘটনায় নিহত ব্যক্তির সংখ্যা […]

অামেরিকা-কানাডার সংবাদ

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পরোয়ানার প্রতিবাদ কানাডা বিএনপি’র

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পরোয়ানার প্রতিবাদ কানাডা বিএনপি’র

কানাডা প্রতিনিধি:  নেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের করা গ্রেফতারী পরোয়ানা প্রত্যাহার কর-কানাড[…]

মালয়েশিয়ার সংবাদ

মালয়েশিয়ায় মাদ্রাসায় আগুনে ২৫ জন নিহত

মালয়েশিয়ায় মাদ্রাসায় আগুনে ২৫ জন নিহত

নিউজ ডেস্ক:  মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে একটি মাদ্রাসায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ২৫ জন নিহত হয়েছেন। স্থা[...]

প্রবাসের আরো সংবাদ

ইইউ বিচ্ছেদে অভিবাসী বাংলাদেশীরা চাপে পড়বে : প্রভাব পড়বে বাংলাদেশেও

ইইউ বিচ্ছেদে অভিবাসী বাংলাদেশীরা চাপে পড়বে : প্রভাব পড়বে বাংলাদেশেও

কূটনৈতিক সংবাদদাতা : ইউরোপীয় জোটের ৪৩ বছরের বাঁধন ছিঁড়ে বেরিয়ে গেল ব্রিটেন। ইইউতে থাকা না থাকা নিয়ে [...]

ইসলামী দল/সংগঠন

কওমী সনদের স্বীকৃতি চাই নিজস্ব স্বকীয়তা বজায় রেখে- ছাত্র মজলিস কেন্দ্রীয় সভাপতি

কওমী সনদের স্বীকৃতি চাই নিজস্ব স্বকীয়তা বজায় রেখে- ছাত্র মজলিস কেন্দ্রীয় সভাপতি

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্র মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুহাম্মদ আজীজুল হক বলেন, ‘কওমী মাদ[...]

বিনোদন

কলকাতা-ঢাকা নৌপথে ভারতের বিলাসবহুল জাহাজ

কলকাতা-ঢাকা নৌপথে ভারতের বিলাসবহুল জাহাজ

ঢাকা: কলকাতা থেকে ঢাকা যাতায়াত আরো উপভোগ্য করতে বিলাসবহুল জাহাজ (লাক্সারি ক্রুজ) সার্ভিস চালু করতে যাচ্ছে ভারত। এ লক্ষ্যে দুই[...]
টিভিতে শো করে বোনের বিয়ে দেবেন কিম জং, আছে শর্তও

টিভিতে শো করে বোনের বিয়ে দেবেন কিম জং, আছে শর্তও

আন্তর্জাতিক ডেস্ক, দেশনিউজ.নেট : উত্তর কোরিয়ার প্রবল পরাক্রমী একনায়ক কিম
গরমে ঠান্ডা থাকুন

গরমে ঠান্ডা থাকুন

ক্রমেই বাড়ছে তাপমাত্রা। যেন মরুভূমির আবহাওয়া। জীবনযাত্রা হয়ে উঠছে কষ্টসাধ্য।
সূচনাতেই জয়ের মুকূট

সূচনাতেই জয়ের মুকূট

নিজস্ব প্রতিবেদক: ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) তৃতীয় ম্যাচে কিংস এলেভেন
কারিনার শর্ত মেনেই বিয়ে করেন সাইফ

কারিনার শর্ত মেনেই বিয়ে করেন সাইফ

বিনোদন ডেস্ক : সাড়ে তিন বছর হল গাঁটছড়া বেঁধেছেন সাইফ

মিডিয়া

'সাংবাদিক সমাজ ঐক্যবদ্ধ হলেই এবিএম মূসার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে'

'সাংবাদিক সমাজ ঐক্যবদ্ধ হলেই এবিএম মূসার প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে'

নিজস্ব প্রতিবেদক:  ১৯৪৭ সালের পরে আমাদের দেশে সকল ক্ষেত্রে যে নতুন ঔজ্জল্য দেখা দিয়েছিল, সাংবাদিকতার ক্ষেত্রে যারা নতুন উদ্যোগ নিয়েছিলেন,[...]

সংগঠন/কর্পোরেট সংবাদ

৭০ শতাংশ করারোপের দাবি সিগারেটসহ অন্যান্য তামাকদ্রব্যের ওপর

৭০ শতাংশ করারোপের দাবি সিগারেটসহ অন্যান্য তামাকদ্রব্যের ওপর

নিজস্ব প্রতিবেদক: আসন্ন বাজেটে সিগারেট, বিড়ি, জর্দা ও গুলসহ সব ধরনের তামাকজাত পণ্যের ওপর ৭০ শতাংশ কর[...]

No posts available

বিজ্ঞান- তথ্যপ্রযুক্তি

ইন্টারনেটের ছোঁয়ায় বদলে গেলো জীবন

ইন্টারনেটের ছোঁয়ায় বদলে গেলো জীবন

চীনের উইঘুর মুসলিম অধ্যুষিত সিনচিয়াংয়ের একটি গ্রাম। নাম তার আকসুপা। প্রাচীন সিল্ক রোডের একটি আউটপোস্ট ছিল একদা এই গ্রাম। রাজধানী[...]

লাইফস্টাইল

ঘামের দুর্গন্ধ প্রতিরোধের উপায়

ঘামের দুর্গন্ধ প্রতিরোধের উপায়

নিউজ ডেস্ক :  গরমকাল পড়লেই অনেক সমস্যা হুট করেই এসে হাজির হয়। ব্রণের সমস্যা, গরমে ঘেমে নাজেহাল হওয়ার সমস্যা, মেকআপ[...]