বিএনপি আগাগোড়া দুর্নীতিবাজ দল : সেতুমন্ত্রী

Obidul-Kader

নিজস্ব প্রতিবেদক: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপির গঠনতন্ত্র পরিবর্তনের মাধ্যমে দলটি আত্মস্বীকৃত দুর্নীতিবাজ দল হিসেবে পরিণত হয়েছে। বিএনপির গঠনতন্ত্রের ৭ ধারা পরিবর্তনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ ধারা বলে দণ্ডিত, দেউলিয়া, উম্মাদ, দুর্নীতিগ্রস্ত ও কুখ্যাত কোনো লোক দলটির সদস্য হতে পারত না।

দলের কাউন্সিলের কোনো বৈঠক ছাড়াই বিএনপির গঠনতন্ত্র পরিবর্তন করা হয়েছে উল্লেখ করে সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি নেতা তারেক রহমানকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান নির্বাচিত করতে দলটির গঠনতন্ত্রের এ পরিবর্তন আনা হয়েছে।

ওবায়দুল কাদের আজ দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিস্থ আওয়ামী লীগ সভাপতি এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয় সংলগ্ন একটি কমিউনিটি সেন্টারে আওয়ামী লীগের এক যৌথসভা শেষে একথা বলেন।

আগামী ৭ মার্চ ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের জনসভা সফল করতে দলের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ আওয়ামী লীগ, ঢাকা ও তার আশপাশের জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক ও রাজধানীর আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্যদের সাথে এ যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি তাদের কর্মসূচি শান্তিপূর্ণভাবে পালনের দাবি করলেও তারা যেখানে সুযোগ পেয়েছে সেখানেই বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছে। আজ রোববারও তারা রাজধানীতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে স্মারকলিপি প্রদানকালে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছে।

তিনি বলেন, বিএনপির নেতা-কর্মীরা যুক্তরাজ্যের লন্ডনে বাংলাদেশ দূতাবাসে হামলা চালিয়েছে। তারা হাইকোর্টের সামনে প্রিজন ভ্যানে হামলা চালিয়ে পুলিশের রাইফেল কেড়ে নিয়ে ভাঙচুর করেছে এবং আসামী ছিনতাই করেছে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি আন্দোলন না করতে পারার অক্ষমতা ঢাকতেই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনের দাবি করছে। তাদের এ ধরনের দাবির মাধ্যমে তারা তাদের আসল চরিত্র প্রকাশ করতে শুরু করেছে।

এক প্রশ্নের জবারে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাদের বলেন, বিএনপির নেতারা দাবি করে আসছেন, খালেদা জিয়া জেলে গেলেও তাদের দল ঐক্যবদ্ধ রয়েছে এবং আগে চেয়েও তাদের দল শক্তিশালী হয়েছে।

বিএনপি যদি ঐক্যবদ্ধ থেকে থাকে এবং আগের চেয়েও শক্তিশালী হয়ে থাকে তাহলে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে সমস্যা কোথায়? আমরাও বিএনপিকে নিয়ে সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে একটি অবাধ, নিরপেক্ষ ও সবার কাছে গ্রহণযোগ্য একটি নির্বাচন করতে চাই।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের আগামী ৭ মার্চের জনসভাকে সফল করার জন্য সভায় অংশ নেয়া নেতাদের বক্তব্য শুনেন এবং তাদের বক্তব্যের জবাব দেন এবং নির্দেশনা প্রদান করেন।

ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপুমনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, একেএম এনামুল হক শামীম, দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, উপ-দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী সংসদের সদস্য এসএম কামাল হোসেন ও মারুফা আক্তার পপি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।