শিরোনাম :

  • শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল, ২০২১

রাঙ্গাবালীতে এক গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ এবং কলাপাড়ায় এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টায় আটক ৩

নিউজ ডেস্কঃ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালীতে এক গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ এবং কলাপাড়ায় এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আজ শনিবার পৃথক এ ঘটনায় তিনজনে আটক করেছে পুলিশ। 

গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণে শাকিল ও আল হাদীকে এবং শিশুকে ধর্ষণচেষ্টায় হারুন আকন নামের এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়।

রাঙ্গাবালী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী আহম্মেদ জানান, গতকাল শুক্রবার রাত ১০টার দিকে ওই নারীকে ঘরে একা পেয়ে অভিযুক্ত তিনজন সংঘবদ্ধভাবে ধর্ষণ করেন। ঘটনার সময় তাঁর স্বামী দোকানে ছিলেন। পরিবারের অভিযোগ, ধর্ষণ শেষে ঘরের মালামাল ডাকাতি করা হয়েছে।

ওসি আলী আহম্মেদ জানান, ভিকটিমকে জেলার ২৫০ শয্যার জেনারেল হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ভর্তি করা হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়ার পরই পরবর্তী সময়ে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অন্যদিকে, পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় টাকার লোভ দেখিয়ে পাঁচ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে হারুন আকন নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। আজ বিকেলে ৩টার দিকে পৌর শহরের বাদুরতলী কলোনি এলাকা থেকে তাঁকে আটক করা হয়।

শিশুটির স্বজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওই শিশুটি প্রতিবেশী অপর এক শিশুকে নিয়ে পাশের একটি বাড়ির উঠানে খেলা করছিল। এ সময় হারুন ওই শিশুটিকে টাকার লোভ দেখিয়ে তাঁর ঘরে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালান। প্রতিবেশী অপর শিশুটি নির্যাতিত ওই শিশুটির পরিবারকে দ্রুত খবর দেয়। পরে স্বজনরা  থানায় জানালে  হারুনকে আটক করে পুলিশ।

কলাপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এদিকে পটুয়াখালীতে আজ বেলা ১১টায় সরকারি জুবিলী স্কুলমাঠে নারী ধর্ষণ ও নির্যাতনবিরোধী এক বিট পুলিশিং সমাবেশ করেছে জেলা পুলিশ। সেখানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য কানিজ সুলতানা হেলেন। বক্তৃতা করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী আলমগীর, পুলিশ সুপার মইনুল হাসানসহ বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার নেতারা।

Print Friendly, PDF & Email