শিরোনাম :

  • রবিবার, ১৬ জুন, ২০১৯

“স্বাধীনতার ৪৯ বছরেও শিক্ষা খাতে শৃঙ্খলা আসেনি”

নিজস্ব প্রতিবেদক: স্বাধীনতার ৪৯ বছরেও দেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা আসেনি। কোমলমতি শিক্ষার্থীদের গিনিপিগ বানিয়ে চলছে পরীক্ষা-নিরীক্ষা। ফলে মানের ক্রমাবনতি ঘটছে। দেশের উচ্চশিক্ষার অবস্থা আরও খারাপ। ফলে বিশ্বের হাজার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকায় বাংলাদেশের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ও স্থান পায়নি। এটা জাতি হিসেবে আমাদের জন্য লজ্জার।

আজ মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) মহান স্বাধীনতা দিবসে টঙ্গীতে অনুষ্ঠিত এক আলোচনা সভায় বক্তারা এ কথা বলেন। টঙ্গীর ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আল-হেলাল একাডেমী ‘ স্বাধীনতার চেতনা ও আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থা’ শীর্ষক এ আলোচনা সভার আয়োজন করে। একাডেমীর প্রিন্সিপাল গোলাম মাওলার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৫৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আওয়ামী লীগ নেতা নাসির উদ্দিন মোল্লা। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন-বিএফইউজের মহাসচিব ও প্রতিষ্ঠানের নির্বাহী পরিচালক এম আবদুল্লাহ, সাংবাদিক ইউনিয়ন গাজীপুরের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ হেদায়েত উল্লাহ, পূবাইল প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক আক্তার হোসেন, বিশিষ্ট আইনজীবী সানাউল্লাহ প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন একাডেমীর সিনিয়র শিক্ষক রফিকুল ইসলাম ও মাহবুবা সুলতানা কলি।
অনুষ্ঠানে জাতীয় সংগীত, দেশাত্মবোধক গান, ইসলামী সংগীত পরিবেশন ছাড়াও বার্ষিক ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শতাধিক শিক্ষার্থী, অভিভাবক ও শিক্ষকদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
নাসির উদ্দিন মোল্লা তাঁর বক্তৃতায় বলেন, শিক্ষা নিয়ে যে পরীক্ষা নিরীক্ষা যুগ যুগ ধরে চলছে তা দু:খজনক। একমুখী শিক্ষার কথা বলা হলেও তা বাস্তবায়ন নিয়ে চলছে অনিশ্চয়তা। এখন তৃতীয় শ্রেণী পর্যন্ত পরীক্ষা না নেওয়ার যে ঘোষণা দেওয়া হয়েছে তা শিক্ষার জন্য কতটা কল্যাণকর হবে তা পর্যালোচনা করে দেখা উচিত। কারণ পরীক্ষা ছাড়া শিশুরা খুব একটা পড়াশোনা করে না।
সাংবাদিক নেতা এম আবদুল্লাহ বলেন, স্বাধীনতার মূল চেতনার অন্যতম হচ্ছে সাম্য ও মানবিক মূল্যবোধ। ৪৯ বছরেও বাংলাদেশে এ চেতনা বাস্তবায়ন হয়নি। শিক্ষাসহ সকল ক্ষেত্রে বৈষম্য সমাজিক ভারসাম্যকে হুমকির মুখে ফেলেছে। শিক্ষা ব্যবস্থায় মানবিক মূল্যবোধের দিকটা উপেক্ষিত থাকায় সামাজিক ও নৈতিক অবক্ষয় মারাত্মক রূপ নিয়েছে। এ অবস্থা চলতে পারে না।