শিরোনাম :

  • সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

ডেঙ্গুকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি: স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: সরকার ডেঙ্গু মোকাবিলায় যে চ্যালেঞ্জ নিয়েছে তাতে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। তিনি বলেছেন, ‘আমরা ডেঙ্গুকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি। আমাদের এই চ্যালেঞ্জে সব শ্রেনী পেশার মানুষকে এগিয়ে আসতে হবে। তবেই সফল হবো।’

বৃহস্পতিবার (২৫ জুলাই) রাজধানীর মানিক মিয়া এ্যাভিনিউতে সপ্তাহজুড়ে সারা দেশে মশক নিধন এবং মশাবাহিত রোগ প্রতিরোধের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, ডেঙ্গুর যে অবস্থা তাতে এটিকে আমরা চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়েছি। আর এটি মোকাবিলায় সবাইকে সোচ্চার হতে হবে। এজন্য আমাদের সাংবাদিক, খেলোয়াড়, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ও নানা পেশার মানুষকে একত্রিত হয়ে জনসচেতনায় ভূমিকা রাখতে হবে।

তিনি বলেন, ‘এটা একটা বৈশ্বিক সমস্যা। আমাদের দেশে বর্ষাকালে মে মাস থেকে সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত এ রোগের প্রাদুর্ভাব বাড়ে। শুধু বাংলাদেশ নয় বিশ্বের অনেক দেশেই এ রোগের প্রাদুর্ভাব বেড়েছে। তাই মার্চ, এপ্রিল থেকে আমাদের সিটি করপোরেশনগুলোকে সাথে নিয়ে এক সঙ্গে কাজ করার জন্য বিভিন্ন কর্মসূচী দিয়েছি। আপনারা জানেন এরইমধ্যে আমাদের ঢাকা দক্ষিণ এবং উত্তর সিটি করপোরেশন তাদের স্ব স্ব উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করছেন। আশা করছি এটি দ্রুত নির্মূল হবে।’ বিজ্ঞাপন

তিনি আরও বলেন, ‘আমি আশা করি আজ থেকে শুরু হওয়া এক সপ্তাহব্যাপী মশক নিধন কর্মসূচি পালনের মধ্য দিয়ে এডিস মশার বংশ বিস্তার ধ্বংস করতে পারব আমরা। সেই সঙ্গে আমরা দেশকে ডেঙ্গু মুক্ত করতেও সক্ষম হবো ইনশাল্লাহ।’

পরে ডেঙ্গু সচেতনতা ও চিকুনগুনিয়া রোধে সংসদ ভবনের সামনে মানিক মিয়া এভিনিউতে এক র‌্যালী অনুষ্ঠিত হয়।

র‌্যালিতে উপস্থিত ছিলেন ডিএসসিসি ও ডিএনসিসির দুই মেয়র, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ইলিয়াস কাঞ্চন, মৌসুমী, সৈয়দ আবুল মকসুদ ও সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তা- কর্মচারীরা।