বাংলাদেশের হয়ে ৫০ টেস্ট খেলা সহজ নয়

42adb9b687979a360d737f934ed0499e-musfiqকম তো নয়, ১১ বছর! ক্রিকেটের সবচেয়ে কুলীন সংস্করণে ১১ বছর আগে অভিষেক হয়েছে মুশফিকুর রহিমের। তবু ৫০ টেস্ট খেলা হয়নি তাঁর!অবশেষে ঢাকা টেস্টে সে দুঃখ ঘুচছে। ক্যারিয়ারে ৫০তম টেস্ট খেলবেন অধিনায়ক। এমন উপলক্ষে আনন্দিত মুশফিক, কিছুটা ব্যথিতও। বাংলাদেশের পক্ষে ৫০ টেস্ট খেলা যে সহজ নয়!

বাংলাদেশ প্রায় ১৫ মাস টেস্ট পরে টেস্ট খেলল চট্টগ্রামে। ২০১৬ সালে মাত্র ২টি টেস্ট খেলবে বাংলাদেশ। ২০১৫ সালেও খেলেছে মাত্র ৫টি। এ রকম অনেক দিন ধরেই চলছে। এ কারণেই ৫০ টেস্ট খেলতেই এত দিন অপেক্ষা করতে হলো মুশফিককে। তাঁর পরে অভিষেক হয়ে অ্যালিস্টার কুক খেলে ফেলেছেন ১৩০ এরও বেশি টেস্ট!
অবশ্য তৃতীয় বাংলাদেশি হিসেবে এই কৃতিত্ব হচ্ছে তাঁর। এর আগে হাবিবুল বাশার ও মোহাম্মদ আশরাফুল বাংলাদেশের হয়ে ৫০তম টেস্ট খেলার অভিজ্ঞতা অর্জন করেছিলেন।
মুশফিক এই অর্জনে তৃপ্ত, ‘খুবই ভালো লাগছে। বাংলাদেশের হয়ে ৫০ টেস্ট খেলা সহজ নয়। আল্লাহর কাছে অশেষ কৃতজ্ঞতা। চেষ্টা করব, ব্যক্তিগতভাবে যেন ভালো খেলি। আর সেটা যেন দলের ফলেও প্রভাব ফেলে। দলের জয়ের জন্য যেভাবে অবদান রাখার দরকার তাই করব।’
তবে নিজের উপলক্ষেও দল নিয়েও ভাবতে হচ্ছে অধিনায়ককে। আর নিজের দল নিয়েও সন্তুষ্ট অধিনায়ক। মুশফিকের ধারণা অতীতের তুলনায় দলে এখন অনেক ম্যাচ জেতানো পারফরমার। এদের ওপর ভর করেই টেস্টে নিয়মিত ভালো করতে চান, ‘সবচেয়ে বড় পরিবর্তন হলো, আগে বাংলাদেশ দলে এক-দুজন কিংবা তিনজন পারফরমার ছিল। এখন আমাদের পাঁচ-ছয়জন আছে। এটা যেকোনো দলের জন্য ভালো। এ জন্যই দল ভালো খেলছে।’
নিজের মাইলফলকের ম্যাচে তাঁর চাওয়া কী? মুশফিকের উত্তর, ‘সবাই যেন ভালো খেলে। আর আমরা যেন টেস্টটা ভালো শুরু ও শেষ করতে পারি।’