• শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৯

উত্তরায় ৭টি এভিনিউতে রিকশা-লেগুনা বন্ধের সিদ্ধান্ত

ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে বুধবার উত্তরায় বাংলাদেশ ক্লাবে বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। সম্প্রতি উত্তরায় চালু হওয়া বিআরটিসি চক্রাকার বাস সার্ভিসের মানোন্নয়নকল্পে এই মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়। মতবিনিময় সভায় মেয়র বলেন, “উত্তরা এলাকায় বিআরটিসি বাসসহ অন্যান্য যানবাহন চলাচল সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার লক্ষ্যে সাতটি এভিনিউতে রিকশা-লেগুনা বন্ধ করা হবে। প্রতিটি সেক্টরে কেবলমাত্র লাইসেন্সধারী নির্দিষ্ট ইউনিফরম পরা রিকশাচালকরা রিকশা চালাতে পারবেন”। তিনি আরো বলেন, “আগামী এক মাসের মধ্যে নাগরিকগণ ডিএনসিসির সেবা সংক্রান্ত যে কোনো তথ্য, অভিযোগ ইত্যাদি ৩৩৩ নম্বরের মাধ্যমে জানাতে পারবেন। ‘নগর’ অ্যাপও অল্প সময়ের মধ্যে চালু করা হবে”। মতবিনিময় সভায় মেয়র আরো জানান, “বনানীতে উর্ধমূখী গাড়ী পার্কিংয়ের কাজ চলতি বছরের মধ্যে শুরু হবে। জায়গা পাওয়া গেলে উত্তরাতেও এধরণের পার্কিং ব্যবস্থা চালু করা হবে”। নতুন অন্তর্ভূক্ত ১৮টি ওয়ার্ডের উন্নয়নের জন্য ৪ হাজার ২ শত কোটি টাকা একনেকে অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে বলে তিনি জানান। তাছাড়া ইতোমধ্যে এসকল ওয়ার্ডের প্রতিটির জন্য ডিএনসিসির ফান্ড থেকে ২ কোটি ২৬ লক্ষ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে বলে মেয়র মতবিনিময় সভায় জানান।
মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাহারা খাতুন এমপি উত্তরা এলাকায় নাগরিক সেবা নিশ্চিত করার জন্য মেয়রের কাছে আহবান জানান।
মতবিনিময় সভায় অন্যান্যের মধ্যে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়া, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আবদুল হাই, ওয়ার্ড কাউন্সিলর আফসার উদ্দিন খান, স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মী, বিভিন্ন সোসাইটির প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।
–ডিএনসিসি প্রেস বিজ্ঞপ্তি