বিএসএমএমইউতে বোমা: খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা বাড়ানোর দাবি বিএনপির

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ পেট্রোল বোমা উদ্ধারের ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেবঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়(বিএসএমএমইউ) হাসপাতালের কেবিন ব্লকে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা জোরদারের দাবি জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার রাতে এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ দাবি জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‌‘বিএসএমএমইউর প্রশাসনিক ভবনের তৃতীয় তলায় রেজিস্টারের কক্ষের সামনে থেকে বোমা উদ্ধারের খবরে বিএনপি গভীরভাবে উদ্বিগ্ন। খালেদা জিয়া হাসপাতালটিতে চিকিৎসাধীন আছেন। কাজেই বোমা উদ্ধারের এই ঘটনা পুরো জাতিকে বিস্মিত ও হতবাক করেছে।’

নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে রিজভী বলেন, ‘এমনিতেই দেশবাসী খালেদা জিয়ার চিকিৎসা নিয়ে সারাক্ষণ চিন্তিত। সেখানে তার চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালের ভেতর থেকে বোমা উদ্ধার এক বড় ধরণের মাস্টার প্লানেরই অংশ কিনা; তা নিয়ে তাদের মনে গভীর সংশয় ও উৎকণ্ঠার সৃষ্টি করেছে।’

‘বিএসএমএমইউর নিজস্ব নিরাপত্তা কর্মীর মধ্যে কলাপসিবল গেটের ভেতরে রেজিস্টরের কক্ষের সামনে কীভাবে কোনো দুস্কৃতকারী বোমা রেখে যেতে পারে? এর পেছনে কোন অশুভ উদ্দেশ্য রয়েছে কিনা; সেই প্রশ্নও দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘যে হাসপাতালে খালেদা জিয়ার মতো একজন সর্বাধিক জনপ্রিয় নেত্রী চিকিৎসাধীন রয়েছেন, সেখানকার নিরাপত্তা বেষ্টনী এতো ঠুনকো থাকার কথা নয়। সেখানে তো নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তা বেষ্টনী থাকার কথা। তাহলে কি উদ্দেশ্যে বিএসএমএমইউতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা দুর্বল রাখা হয়েছে?’

‌‘এই বোমা উদ্ধারের ঘটনায় এটা প্রমানিত হলো যে, খালেদা জিয়ার নিরাপত্তার বিষয়ে সরকার উদাসীন অথবা অন্যকোন নীল নকশা অনুযায়ী কাজ হচ্ছে,’ মন্তব্য বিএনপির এই যুগ্ম মহাসচিবের।

রিজভী বলেন, ‘খালেদা জিয়ার জীবন ও নিরাপত্তার বিষয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিএনপি। তিনি এখনও গুরুতর অসুস্থ। তার বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা চলছে। আমি তার নিরাপত্তার ব্যাবস্থা জোরালোসহ সুচিকিৎসা নিশ্চিত করার আহ্বান জানাচ্ছি।’

সংবাদ সম্মেলনে দলের চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য আবদুস সালাম, নির্বাহী সদস্য আমিনুল ইসলাম, মশিউর রহমান বিপ্লব উপস্থিত ছিলেন।