যাকাতের অর্থ দরিদ্রদের কল্যাণে দান করুন : সমাজকল্যাণ মন্ত্রী

সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদ এম পি বলেছেন, সমাজের বিত্তবানরা এগিয়ে আসলে দরিদ্র জনগণ উপকৃত হবে। যাকাতের অর্থ দিয়ে সমাজের একটি টার্গেট গ্রুপকে স্বাবলম্বী করা সম্ভব। আমাদের সকলের উচিৎ অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে সাহায্যের হাত বাড়ানো।

মন্ত্রী রবিবার রাজধানীর আগারগাঁওস্থ সমাজসেবা অধিদফতরে বাংলাদেশ রোগী কল্যাণ সমিতি, আয়োজিত দুই দিন ব্যাপি রোগী কল্যাণে সমাজসেবায় বিশেষ যাকাত মেলা-২১০৯ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

সমাজসেবা অধিদফতরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) গাজী মো. নুরুল কবিরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এম পি ও সমাজ কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব জুয়েনা আজিজ।

মন্ত্রী বলেন, সমাজের সামর্থবান মানুষকে যাকাতের অর্থ প্রকৃত সুবিধা বঞ্চিতদের কল্যাণে ব্যয়ে উৎসাহী করতে এ মেলার আয়োজন করা হয়েছে। এ মেলার মাধ্যমে প্রদেয় যাকাতের অর্থ প্রতিবন্ধি, অসহায় ও দুঃস্থ রোগীদের সেবায় ব্যবহার করা হবে। এ মেলার মাধ্যমে মানুষজনের মধ্যে যাকাত প্রদানের আগ্রহ বৃদ্ধি পাবে।
মন্ত্রী বলেন, সমাজসেবা অধিদফতর বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া প্রতিষ্ঠান। বর্তমানে এ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ৫২০ টি সেবা জণগন পেয়ে থাকে। আগামী বছরের মধ্যে ৬০০ ধরনের সেবা প্রদানের লক্ষে প্রতিষ্ঠানটি কাজ করছে।

সমাজকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমরা চাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেৃত্বে পরিচালিত বাংলাদেশে কোন মানুষ অসহায়ভাবে জীবনযাপন করবেনা। সরকারের পাশাপাশি সমার্থবানরাও তাদের সাধ্যমত অসহায় মানবতার পাশে দাঁড়াবে।

মেলায় মোট২৮ টি হাসপাতালের রোগী কল্যাণ ইউনিট অংশগ্রহণ করে। মেলায় বিভিন্ন ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠান আনুমানিক এক কোটি টাকা যাকাতের অর্থ প্রদান করেন।

পরে মন্ত্রী দু’টি ক্যাটাগরীতে ছয়টি হাসপাতাল ও সেবাদান প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন।

-খবর তথ্য বিবরণীর