প্রস্তাবিত বাজেটে দাম বাড়ছে যেসব পণ্যের

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ২০১৯-২০ অর্থবছরের জন্য জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেটে বেশ কিছু পণ্য ও সেবায় বাড়তি কর আরোপ করায় এসব পণ্য ও সেবার দাম বাড়তে পারে।

১৩ জুন, বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট পেশ করা হয়েছে। বাজেট ঘোষণার সময় অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল সময় অসুস্থ হয়ে পড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্পিকারের অনুমতিক্রমে বাজেট ঘোষণা করছেন।

অর্থমন্ত্রীর প্রস্তাব অনুযায়ী, যাত্রীবাহী বাস, পণ্যবাহী ট্রাক, লরি, থ্রি হুইলার, অ্যাম্বুলেন্স এবং স্কুলবাস বাকী সব ধরনের গাড়ির রেজিস্ট্রেশন, ফিটনেস, মালিকানা পরিবর্তন, রুট পারমিট, রেজিস্ট্রেশন নবায়ন ইত্যাদিতে ১০ শতাংশ শুল্ক আরোপ করা হয়েছে। এতে সার্বিকভাবে গাড়ির ওপর খবর বাড়বে।

সিগারেট,বিড়ি, জর্দা, গুলসহ সকল তামাকজাত পণ্য, সোনা ও রুপার অলংকার, এলপি গ্যাস, আমদানি করা চিনি, আমদানি করা গুঁড়া দুধ, গুঁড়া মসলা, টয়লেট টিস্যু, টিউবলাইট, চশমার ফ্রেমের দাম বাড়তে পারে। এসব পণ্যের প্রত্যেকটির উৎপাদন পর্যায়ে ৫ শতাংশ হারে ভ্যাট আরোপের প্রস্তাব করা হয়েছে।

একই কারণে সিআর কয়েল, জিআই ওয়্যার, তারকাঁটা, স্ক্রু, অ্যালুমিনিয়ামের তৈরি হাঁড়ি-পাতিল, থালা-বাসনসহ গৃহস্থালি সামগ্রী ইত্যাদির দাম বাড়বে।

হেলিকপ্টার ও চার্টার্ড বিমান সেবা মূল্যের ওপর ভ্যাটের পাশাপাশি সম্পূরক শুল্ক বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে এ দুটি সেবা গ্রহণ করার ক্ষেত্রেও খরচ বাড়বে।

এ ছাড়া আইসক্রিম, মোবাইল ফোনের সিম কার্ড, মোবাইলে কল, স্মার্টফোন, টমেটো কেচাপ, চাটনি, ফলের জুস, স্ক্রু, ব্লেড, ট্রান্সফরমার, সানগ্লাস, রিডিং গ্লাস, আমদানি করা পার্টিকাল বোর্ড, আমদানি করা সব ধরনের টায়ারের দাম বাড়বে।

একইসঙ্গে সয়াবিন তেল, পামঅয়েল, সানফ্লাওয়ার অয়েল ও সরিষার তেল আমদানিতে, ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল, লঞ্চের এসি কেবিন, ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট, ইনডেনটিং, আসবাবপত্র, পরিবহন ঠিকাদার, তথ্যপ্রযুক্তিনির্ভর সেবার ওপর খরচ বাড়বে।

এ ছাড়া তৈরি পোশাক ক্রয়, পোশাক তৈরি ভ্যাট বৃদ্ধিতে পোশাকের দাম এবং রড উৎপাদন ও বিপণনে ভ্যাট প্রস্তাব করায় বাড়ি করার খরচ বাড়তে পারে।