টঙ্গীতে প্রতারণার অভিযোগে এমএলএম কোম্পানির ৩১ সদস্য গ্রেফতার

টঙ্গী প্রতিনিধি: গাজীপুরের টঙ্গী মধুমিতা এলাকায় অভিযান চালিয়ে লাইফওয়ে বাংলাদেশ প্রাইভেট লিমিটেড নামে ভুয়া এমএলএম কোম্পানির সংঘবদ্ধ প্রতারক চক্রের মূল হোতা আলতাবুর রহমানসহ ৩১ সদস্যকে গ্রেফতার করেছেন র‌্যাব-১১ সদস্যরা।

এ সময় ৭৩ জন ভুক্তভোগীকে উদ্ধার করা হয়েছে। জব্দ করা হয় বিপুল পরিমাণ অবৈধ মালামাল। বৃহস্পতিবার দুপুরে এ অভিযান চালানো হয়। 

র‌্যাব-১১-এর এএসপি মো. জসিম উদ্দিন চৌধুরী গণমাধ্যমকে জানান, মো.কাউসার নামে এক ভুক্তভোগী যুবকের দায়ের করা অভিযোগের প্রেক্ষিতে র‌্যাব অভিযান পরিচালনা করে তাদের গ্রেফতার করে। পরে গ্রেফতারকৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ও জব্দকৃত নথিপত্র পর্যালোচনা করে উক্ত ভুয়া এমএলএম কোম্পানি মাসিক ১৫ হাজার ও তদূর্ধ্ব টাকা বেতনের প্রতিশ্রুতি প্রদান করে ৩টি ভিন্ন প্যাকেজে চাকরি প্রত্যাশীদের কাছ থেকে যথাক্রমে ৩০ হাজার , ৪০ হাজার  ও ৫৫ হাজার টাকা করে নেয়।

পরবর্তী সময়ে প্রশিক্ষণের নামে কয়েক সপ্তাহ কালক্ষেপণ করে প্রত্যেককে নতুন ২ জন সদস্য সংগ্রহের শর্ত প্রদান করে। নতুন সদস্য সংগ্রহ করে দিলে সংগৃহীত টাকার সামান্য কমিশন প্রদান করে। নতুন সদস্য দিতে না পারলে কৌশলের আশ্রয় নিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে খালি স্ট্যাম্ট ও আপসনামায় জোরপূর্বক স্বাক্ষর নিয়ে তাড়িয়ে দেওয়া হয়। প্রতিবাদ করলে ভাড়াটে লোকদের দ্বারা আটকে রেখে শারীরিক নির্যাতনও করে থাকে তারা।

পরে উদ্ধারকৃত ৭৩ জনকে নিজ নিজ বাড়িতে ফিরে যেতে সকল ভূক্তভোগীকে নগদ পাঁচশ টাকা প্রদান করে র‌্যাব।