শিরোনাম :

  • সোমবার, ২৫ জানুয়ারি, ২০২১

মিয়ানমারের সাধারণ নির্বাচনে সুচি’র দল আবারো ক্ষমতায় আসছে

সামরিক শাসনের অবসানের পর মিয়ানমারে দ্বিতীয়বারের মতো গতকাল রোববার সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে গেল। আবারো অং সান সু চি‘র দল ক্ষমতায় আসছে বলে মোটামুটি নিশ্চত।

রোহিঙ্গাদের বাদ রেখেই মিয়ানমারের সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ায় আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকদের মতে এটা অনেকটাই নিয়মরক্ষার নির্বাচন হয়েছে।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, রোববার সকাল থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা ভোট গ্রহণ করা হয়েছে। নির্বাচন উপলক্ষ্যে ইয়াংগুনসহ সারা দেশে দোকানপাট ও সব প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল।

মিয়ানমারে অং সান সু চির দল লিগ ফর ডেমোক্রেসির (এনএলডি) ব্যাপক জনপ্রিয়তা থাকলেও বহির্বিশ্বে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর নির্যাতনের দায়ে তারা কোনঠাসা।

আজ সোমবারেই ফলাফল জানিয়ে দেয়া হবে বলে আশা প্রকাশ করেছে দেশটির নির্বাচন কমিশন।

এনএলডি তাদের ফেসবুক পেজে জানিয়েছে, পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে ৪২৫ জন সদস্যের মধ্যে ৩১৫টিতে তাদের প্রার্থী রয়েছে। যাদের মধ্যে ইতোমধ্যে ১৫ জনের বিজয়ী হয়েছেন।

এনএলডির মুখপাত্র ময়ো নয়ুন রয়টার্সকে টেলিফোনে জানান, আমরা বিশ্বাস করি এই নির্বাচনে আমরা বিজয়ী হব এবং সরকার গঠন করতে পারব।

তিনি বলেন, নির্বাচন সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে।

প্রায় ৫০ বছর সেনা শাসন চলার পর ২০১১ সালে সীমিত আকারে গণতান্ত্রিক পদ্ধতি ফিরে আসে। যদিও দেশটির সেনাবাহিনী উভয় পার্লামেন্টের এক চতুথাংর্শ আসন নিজেদের দখলে রেখেছে।

এর আগে দীর্ঘ সামরিক শাসনের পর ২০১৫ সালে দেশটিতে প্রথমবারের মতো সব দলের অংশ গ্রহণে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। যার মাধ্যমে ক্ষমতায় এসেছিল অং সান সু চির নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি)। করোনার কারণে এবার নির্বাচনের প্রেক্ষাপট ভিন্ন হলেও আবারো ‘এনএলডি’ ক্ষমতায় আসছে এটা প্রায় নিশ্চিত।

সূত্র : রয়টার্স

Print Friendly, PDF & Email