রাত ১১টায় ঘোষণা, চাঁদ দেখা গেছে, বুধবার ঈদ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ এবার পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে বলে জানিয়েছেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ। তিনি বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন জায়গায় শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। আগামীকাল বুধবার ( ৫ জুন) যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।’ মঙ্গলবার (৪ জুন) রাত এগারোটায় ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররমের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠকে পুনরায় ব্রিফিংকালে তিনি এ তথ্য জানান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ধর্মসচিব আনিছুর রহমান।

এর আগে, রাত পৌনে নয়টার দিকে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, ‘দেশের কোথায় পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। আজ চাঁদ দেখা না যাওয়ায় আগামীকাল (বুধবার) ঈদ হচ্ছে না। আগামী বৃহস্পতিবার সারাদেশে যথাযথ মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।’

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আরও বলেছেন, ‘সভায় ১৪৪০ হিজরি সনের পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা সম্পর্কে সব জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ৬৪ জেলা কার্যালয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতর, মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান থেকে পাওয়া তথ্য নিয়ে পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, আজ (মঙ্গলবার) সন্ধ্যায় বাংলাদেশের আকাশে পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। তাই, আগামী বৃহস্পতিবার থেকে পবিত্র শাওয়াল মাস গণনা শুরু হবে। এদিন ১ শাওয়াল সারাদেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে।’

এর আগে, মাগরিবের নামাজের পর সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বায়তুল মোকাররমের সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি বৈঠকে বসে। এতে সভাপতিত্ব করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ। আরও উপস্থিত ছিলেন ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সচিব, প্রধান তথ্য কর্মকর্তা, বাংলাদেশ টেলিভিশনের পরিচালক, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের পরিচালক, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম।
সভায় চাঁদ দেখা সম্পর্কে সব জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ৬৪ জেলা কার্যালয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদফতরের ৪৭টি কেন্দ্র এবং মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান থেকে প্রাপ্ত তথ্য নিয়ে পর্যালোচনা করা হয়।
এদিকে, সোমবার (৩ জুন) পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা যাওয়ায় আজ মঙ্গলবার সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের বেশ কয়েকটি দেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়। এদিকে, সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে লক্ষ্মীপুর, দিনাজপুর, নারায়ণগঞ্জ, বরগুনা, চাঁদপুর, শরীয়তপুর, কুমিল্লা, ভোলাসহ কয়েকটি জেলার শতাধিক গ্রামে মঙ্গলবারই পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে।