অবশেষে ডিআইজি মিজান বরখাস্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক: বিতর্কিত পুলিশ কর্মকর্তা ডিআইজি মিজানুর রহমানকে বরখাস্ত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। মঙ্গলবার রাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
রাষ্ট্রপতির দপ্তরে পাঠানো চিঠিতে অনুমোদনের পরই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।
এর আগে, সোমবার তিন কোটি সাত লাখ টাকার সম্পদ গোপন এবং তিন কোটি ২৮ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদের অভিযোগে ডিআইজি মিজানুর রহমান মিজান ও তার স্ত্রী সোহেলিয়া আনার রত্নাসহ চারজনের বিরুদ্ধে মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন, দুদক। মিজানের বিরুদ্ধে মামলা পরিচালনা সংক্রান্ত গেজেটও প্রকাশ হয়েছে। এর ফলে থানায় নয় বরং নিজ দপ্তরেই মামলা করছে দুদক। মামলাটি দায়ের করা হয়েছে দুদকের ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়ে।
মিজানের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ এনে মামলার সুপারিশ করে প্রতিবেদন তৈরি করে দুদকের অনুসন্ধান টিম। কমিশনের বৈঠকে প্রতিবেদন উপস্থাপনের পর তা অনুমোদন পায়।
দুদকের প্রতিবেদনে মিজানের চার কোটির বেশি টাকার অবৈধ সম্পদের তথ্য তুলে ধরা হয়।

মিজানের নামে পাওয়া সম্পদের মধ্যে রয়েছে রাজধানীর ‘বেইলি রিজ’ ভবনের চতুর্থ তলায় ৫৫ লাখ টাকা মূল্যের একটি ফ্ল্যাট, একই ভবনের নিচে কার পার্কিংয়ের স্পেসসহ ৫৫ দশমিক ৫১ অযুতাংশ জমি, কাকরাইলে দুই কোটি ২০ লাখ টাকা মূল্যের একটি বাণিজ্যিক ফ্ল্যাট।
এছাড়া তিন কোটি ৪৩ লাখ ৭৪ হাজার ৪৬০ টাকা মূল্যের জমি ও দোকানের সন্ধান পেয়েছে দুদক। সিটি ব্যাংকের ঢাকার ধানমণ্ডি শাখায় মিজানের অ্যাকাউন্টে ১০ লাখ টাকাসহ বেশকিছু সম্পদ থাকার তথ্য রয়েছে প্রতিবেদনে।