• মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট, ২০২২

অভিযোগের জবাবে শওকত মাহমুদ

দলের সিদ্ধান্তের বাইরে কিছু করিনি, ভবিষ্যতেও করবো না

নিজস্ব প্রতিবেদক :

দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগের জবাব দিয়েছেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদ।  তার ব্যক্তিগত সহকারি আবদুল মোমিন সাংবাদিকদের একথা জানান।

তিনি বলেন, স্যারকে দল থেকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। তার জবাব বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিবের হাতে পৌঁছিয়ে দিয়েছি।

জবাবে একপৃষ্ঠায় শওকত মাহমুদ তার বক্তব্য উপস্থাপন করেছেন।  সূত্র জানায়, জবাবে শওকত মাহমুদ যে বিষয়ে ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে তার সুনির্দিষ্ট ব্যাখ্যা ও যুক্তি তুলে ধরেছেন। দলের সিদ্ধান্তের বাইরে তিনি কোন কাজ করেননি এবং ভবিষ্যতেও করবেন না বলে উল্লেখ করেছেন। জবাবী চিঠিতে শওকত মাহমুদ তাঁর ব্যাপারে দলের যে কোন সিদ্ধান্ত মেনে নেবেন বলেও উল্লেখ করেছেন বলে জানা গেছে।

গত ৬ এপ্রিল দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ এনে ভাইস চেয়ারম্যান শওকত মাহমুদকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয় এবং ৫ দিনের মধ্যে তার জবাব দিতে বলা হয়।

গত ২৭ মার্চ জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ‘পেশাজীবী সমাজ’ ব্যানারে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে এক সমাবেশকে কেন্দ্র করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব স্বাক্ষরে শওকত মাহমুদকে এই নোটিশ দেওয়া হয়।

২০১৬ সাল থেকে বিএনপিতে ভাইস চেয়ারম্যান পদে থাকা শওকত মাহমুদ বিএনপির সমর্থিত সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক।

এর আগেও শওকত মাহমুদকে ২০১৯ সালে ১৩ ডিসেম্বর দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছিলো। তখনও খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে একটি সমাবেশকে কেন্দ্র করে ওই নোটিশ দেয়া হয় তাকে এবং আরেক ভাইস চেয়ারম্যান হাফিজ উদ্দিন আহমেদকে। তবে তারা জবাব দেওয়ার পর তা মিটে গিয়েছিল।

Print Friendly, PDF & Email