শিরোনাম :

  • রবিবার, ১৬ জুন, ২০১৯

‘আওয়ামী লীগ সরকারকে কীভাবে সরাতে হয়, তা আপনারা শিগগিরই দেখবেন’

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে নিয়ে সরকার কী চায়, জনগণের তা বুঝতে বাকি নেই বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার জমিরুদ্দিন সরকার।

খালেদা জিয়ার কারাবাস দীর্ঘায়িত করার মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার লন্ডনে দেওয়া বক্তব্য পুঙ্খানুপঙ্খুভাবে বাস্তবায়ন করছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি। খালেদা জিয়াকে কেরানীগঞ্জ কারাগারে কেন পাঠানো হচ্ছে, তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি।

শনিবার (১৮ মে) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য দেন ব্যারিস্টার জমিরুদ্দিন সরকার। সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তর দেন ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস ও গয়েশ্বরচন্দ্র রায়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান ডা. এজেড এম জাহিদ হোসেন, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীসহ অন্যরা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ব্যারিস্টার জমিরুদ্দিন সরকার বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী লন্ডনে নিজ দলের উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখার এক পর্যায়ে বলেছিলেন যে, বেগম জিয়া কোনো দিনই কারাগার থেকে বের হবেন না। তিনি দেশে এসে সেটি পূঙ্খানুপুঙ্খভাবে বাস্তবায়ন করছেন। ইতোমধ্যে কেরানীগঞ্জে আদালত স্থানান্তরের এসআরও জারি করা হয়েছে। এই নির্দেশ কিসের জন্য এবং কার জন্য করা হচ্ছে, তা জনগণের বুঝতে বাকি নেই।’

‘আইনি প্রক্রিয়ায় খালেদা জিয়ার জামিন সম্ভভ না। আন্দোলনের মাধ্যমেই তাকে মুক্ত করতে হবে’, বার বার এমন বক্তব্য দেওয়ার পরও আন্দোলন কর্মসূচিতে যাচ্ছেন না কেন?— সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ব্যারিস্টার জমিরুদ্দিন সরকার বলেন, ‘বিএনপি একটি গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক দল। এই দলের পক্ষে আইনি প্রক্রিয়ার বাইরে কিছু করার সুযোগ নেই। আমরা কোনো ভাবেই আইনি লংঘন করতে পারি না। চেষ্টা করছি, আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমেই তাকে মুক্ত করতে।’

একই প্রশ্ন বার বার করলে ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ সাংবাদিকদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমরা খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা এবং দ্রুত মুক্তির বিষয় নিয়ে এখানে লিখিত বক্তব্য দিয়েছি। আমরা আজ এর মধ্যেই থাকতে চাই। আপনাদের প্রশ্নের জবাব দিতে গেলে আজকের বিষয়টি ডাইভার্ড হয়ে যাবে।’

অপর এক প্রশ্নের জবাবে ব্যারিস্টার জমিরুদ্দিন সরকার বলেন, ‘আদালত স্থানান্তর করে খালেদা জিয়ার বিচার কাজ পরিচালনা করে ঠিক হচ্ছে কী না, সেটা নিয়ে আমাদের আইনজীবীরা কাজ করছেন। তারাই খতিয়ে দেখবেন বিষয়টির লজিক্যাল দিক আছে কী না।’

সাংবাদিকদের আরেক প্রশ্নের জবাবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকারকে কীভাবে সরাতে হয়, তা আপনারা শিগগিরই দেখবেন।’