শিরোনাম :

  • সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

খালেদা জিয়ার মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে রিজভীর মিছিল

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে ঝটিকা মিছিল করেছেন নেতাকর্মীরা। দলের সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে শতাধিক নেতাকর্মী মিছিলে অংশ নেন।

শুক্রবার (৩১ মে) বিএনপির অঙ্গ সংগঠনের উদ্যোগে ঝটিকা মিছিলটি নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও দলীয় কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।

মিছিল শেষে রুহুল কবির রিজভী বলেন,‘সরকারের উদ্দেশে বলতে চাই— ঈদের আগেই খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘সম্প্রতি কিছু গণমাধ্যম সরকারের ইন্ধনে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে এমনকি দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানকে নিয়েও নেতিবাচক সংবাদ প্রকাশ করছে।’

রিজভীর অভিযোগ, সরকার ও গোয়েন্দা সংস্থা নানা কূটকৌশল করে বিএনপির মধ্যে বিভেদ সৃষ্টি করতে না পেরে এখন কিছু গণমাধ্যমকে দিয়ে মনগড়া কল্পকাহিনী রচনা করছে। যার সঙ্গে বাস্তবতার কোনও মিল নেই।

সরকার আদালতকে ব্যবহার করে খালেদা জিয়াকে মিথ্যা বানোয়াট ও সাজানো মামলায় সাজা দিয়ে কারাবন্দি করে রেখেছে দাবি করে রিজভী বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার চেয়েছিল তাকে (খালেদা জিয়া) কারাগারে বন্দি করে রেখে বিএনপিকে নিঃশেষ করতে, ধ্বংস করে দিতে। কিন্তু সরকারের সেই চেষ্টা ব্যর্থ হয়েছে। লাখ লাখ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে হাজার হাজার মিথ্যা ও গায়েবি মামলা দিয়ে, গুম করে, খুন করেও বিএনপি নেতাকর্মীদের দমানো যায়নি।’

বিএনপিকে ভাঙার জন্য সরকারের কোনও অপচেষ্টাই সফল হয়নি মন্তব্য করে রিজভী বলেন, ‘তাই বিভিন্ন সংস্থা দিয়ে সরকার বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কুৎসা রটানোর অপচেষ্টা করছে। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি। কারাবন্দি থাকলেও দেশব্যাপী বিএনপি’র লাখ লাখ নেতাকর্মী খালেদা জিয়ার উপস্থিতি অনুভব করেন। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে সব পর্যায়ের নেতাকর্মী ঐক্যবদ্ধ। দলের কমিটি গঠন, বিভিন্ন কর্মসূচি প্রণয়ন সবই দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে পরামর্শ করে বাস্তবায়ন করছেন।’

মিছিলে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য টিএস আইয়ুব, ছাত্রদলের সহ-সভাপতি আলমগীর হোসেন সোহান, সহ-সাধারণ সম্পাদক শরীফুল ইসলাম মিঠু, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী ইফতে খায়রুজ্জামান শিমুল প্রমুখ।