ঢাকা, সোমবার, রাত ১:২২ মিনিট, তারিখ: ১১ই চৈত্র, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ, ২৫শে মার্চ, ২০১৯ ইং, ১৮ই রজব, ১৪৪০ হিজরী
ত্রিপুরায় সেক্যুলারদের পতন | deshnews.net

deshnews.net

ত্রিপুরায় সেক্যুলারদের পতন

মার্চ ০৫
পূর্বাহ্ণ ১২:৫৫ সোমবার ২০১৮

tripura-district-mapনিজস্ব প্রতিবেদকঃ পশ্চিমবঙ্গে পতন ঘটার পরও ত্রিপুরায় লাল পতাকা উড্ডীন রেখেছিলেন মানিক সরকার; এবার বিজেপির কাছে সেই দুর্গ হাতছাড়া হল বামদের। ভারতের ত্রিপুরার বিধান সভা নির্বাচনের যে ফল ঘোষণা হয়েছে গতকাল শনিবার; তাতে দেখা যাচ্ছে কেন্দ্রে ক্ষমতাসীন বিজেপি এই রাজ্যটির ক্ষমতায় বসতে যাচ্ছে। রাজ্যটিতে আগের নির্বাচনেও নরেন্দ্র মোদীর দলের কোনো অবস্থান ছিল না। এখন কংগ্রেসকে পেছনে ফেলে সিপিএমকেও ঠেলে জয় নিয়েই এই প্রথম ছোট রাজ্যটিতে সরকার গড়তে যাচ্ছে বিজেপি।

উত্তরপূর্ব ভারতের তিন রাজ্যের ভোটের ফলাফল প্রকাশ হয়েছে গতকাল। ত্রিপুরা, মেঘালয় এবং নাগাল্যান্ডের নির্বাচনকে ঘিরে তুমুল উত্তেজনা ছিল চোখে পড়ার মতো। সময় গড়িয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই নির্বাচনের ফলাফল জানতে অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন তিন রাজ্যের প্রার্থীরা। ত্রিপুরার ৬০টি বিধান সভার আসনের মধ্যে ৫৯টিতে ভোটগ্রহণ করা হয়। এনডিটিভির খবর অনুযায়ী ত্রিপুরায় বিজেপি পেয়েছে ৪৩টি। বামফ্রন্ট পেয়েছে ১৬টি। এখানে কংগ্রেস কোনো আসন পায়নি। কংগ্রেসের আসন সংখ্যা শূন্য নাগাল্যান্ডেও। এখানে ৬০ আসনের মধ্যে এনডিপিপি বিজেপি জোট পেয়েছে ৩১ আসন, এনপিএফ পেয়েছে ২৭ আসন, অন্যান্যরা পেয়েছে অপর ২টি আসন। মেঘালয়ে ৫৯ আসনের মধ্যে কংগ্রেস ২১টি, এনপিপি ১৯টি, বিজেপি ২টি এবং অন্যান্যরা ১৭ টি আসন পেয়েছে। এখানে সরকার গঠনের মতো সংখ্যাগরিষ্ঠতা কেউ পায়নি।

ত্রিপুরায় ভোটগণনা শুরুর আগেই বুথফেরত জরিপগুলো বিজেপির জয়ের আভাস দিচ্ছিল। দুপুরের পর টাইমস অব ইন্ডিয়াসহ ভারতের গণমাধ্যমে ৫৯ আসনের ফলাফল আসে। এই রাজ্যে সরকার গঠনে প্রয়োজন ৩১টি আসন; ৪৩টি আসন পাওয়ায় কেন্দ্রের শাসক বিজেপি এই রাজ্যটির শাসন ক্ষমতাও নিচ্ছে।

ত্রিপুরায় বাম ফ্রন্ট প্রথম ক্ষমতায় আসে ১৯৭৭ সালে। ১৯৮৩ সালের নির্বাচনেও জয় ধরে রেখেছিল তারা। ১৯৮৮ সালে কংগ্রেস–টিইউজেএস জোটের কাছে হারলেও পরের ভোটেই (১৯৯৩ সালে) ক্ষমতা পুনরুদ্ধার করে বাম ফ্রন্ট। তারপর টানা চার বার ক্ষমতায় মানিক সরকার। গতবারও জিতেছিল ৬০টির মধ্যে ৫০টি আসন। টানা ৩৪ বছর শাসনের পর ২০১১ পশ্চিমবঙ্গে বাম শাসনের অবসান ঘটলেও মানিকের নেতৃত্বে ত্রিপুরায় দুর্গ আগলে রাখছিল তারা। এখন তাও হারাতে হল।

হিন্দুত্ববাদী দল বিজেপি এর আগে কখনও ত্রিপুরায় কোনো আসন না জিতলেও এবার বেশ আঁটঘাট বেঁধে নেমেছিল। সৎ, নির্লোভ ভাবমূর্তির মানিক সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতায় যেতে অর্থ ও গ্ল্যামারের তুমুল প্রদর্শনী ছিল বিজেপির পদ্মফুল মার্কাধারীদের।

Please follow and like us:

একই ধরণের সংবাদ

পাঠকের মন্তব্য (০)

আপনার ইমেইল একাউন্ট প্রকাশ করা হবে না
‘অবশ্যই প্রয়োজনীয়’ ক্ষেত্রসমূহ চিহ্নিত করা আছে *

ইউরোপের সংবাদ

পশ্চিমা বিশ্বকে এরদোগানের কঠোর হুঁশিয়ারি

পশ্চিমা বিশ্বকে এরদোগানের কঠোর হুঁশিয়ারি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলায় নিউজিল্যান্ডকে সতর্ক করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট[…]

Please follow and like us:

ইসলামী দল/সংগঠন

No thumbnail available

উপজেলা নির্বাচন: চট্টগ্রামে পুলিশ গুলিবিদ্ধ

নিজস্ব প্রতিবেদনঃ চট্টগ্রামের চান্দনাইশ উপজেলায় একটি কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের সময় আজ (২৪ মার্চ) সংঘর্ষে প[...]

সংগঠন/কর্পোরেট সংবাদ

চট্টগ্রামের বীমা মেলায় ৩টি সম্মাননা পেল ন্যাশনাল লাইফ

চট্টগ্রামের বীমা মেলায় ৩টি সম্মাননা পেল ন্যাশনাল লাইফ

নিজস্ব প্রতিবেদক : গত ১৫ ও ১৬ মার্চ চট্টগ্রামে অনুষ্ঠিত হল দুই ‍দিনব্যাপী বীমা মেলা। জমজমাট এই ম[...]