শিরোনাম :

  • রবিবার, ১৬ জুন, ২০১৯

দিল্লির গদি মোদিরই থাকলো

নিউজ ডেস্কঃ ভারতের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণা হয়েছে। এতে বুথফেরত জরিপই (এক্সিট পোল) সত্য হয়েছে। প্রয়োজনের চেয়ে অনেক বেশি আসনে জয় পেয়ে টানা দ্বিতীয়বার সরকার গঠনের রায় পেয়েছে ক্ষমতাসীন বিজেপির নেতৃত্বাধীন ন্যাশনাল ডেমোক্রেটিক অ্যালায়েন্স (এনডিএ)।

বৃহস্পতিবার সকালে ভোট গণনা শুরু হতেই দেখা যায়, বৃহত্তম দল হিসেবে সংখ্যাগরিষ্ঠতা ছুঁয়েছে নরেন্দ্র মোদীর বিজেপি। ৩০০ এরও বেশী ৩২৫ আসনে তারা জয় পেয়েছে। রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, ছত্তিশগড় সহ বেশীরভাগই রাজ্যেই ভাল ফল বিজেপির। গত ডিসেম্বরে এই রাজ্যগুলিতে জিতেছিল কংগ্রেস। এইচডি কুমারস্বামী ও কংগ্রেসের জোট সরকার চলা কর্ণাটকেও জয় পেয়েছে বিজেপি। পঞ্জাব ও তামিলনাড়ুতে কংগ্রেস ভালো করেছে। ৫৪৩ আসনের মধ্যে ৫৪২টিতে ভোট হয়। সরকার গড়তে কোনও দল বা সরকারকে পেতে হবে ২৭২টি আসন।

ঘোষিত ফলাফলে দেখা যায়, বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট এনডিএ ৩২৫টি আসনে জয় লাভ করেছে, কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন জোট সংযুক্ত প্রগতিশীল মোর্চা (ইউপিএ) ৮৮টি আসনে জয় পেয়েছে, মহাগতবন্ধন (এমজিবি) জোট পেয়েছে ২৬। এছাড়া অন্যান্য দল জয় পেয়েছে ১০৩টি আসনে। খবর টাইমস অব ইন্ডিয়ার।

নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি নেতৃত্বাধীন জোট এনডিএ। শেষ ধাপের ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হওয়ার পর বিভিন্ন জরিপ সংস্থার বুথ ফেরত সমীক্ষায় উঠে এসেছে মোদির জয়ের চিত্র।

এরইমধ্যে ১টি আন্তর্জাতিক ও ৩টি স্থানীয় সংস্থা তাদের বুথ ফেরত জরিপের ফলাফল প্রকাশ করেছে। সে অনুযায়ী তিনশ’র বেশি আসন নিয়ে সরকার গঠন করতে যাচ্ছে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট। আর প্রধান বিরোধীদল কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোট দেড়শ’রও বেশি আসন পেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বুথ ফেরত জরিপ বলছে, গতবারের মতো এবারো পশ্চিমবঙ্গে এগিয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর দল তৃণমূল কংগ্রেস। ৪২টি আসনের মধ্যে টিএমসি পেতে পারে ২৪টি আসন। এছাড়া, বিজেপি ১৪টি ও কংগ্রেস ২টি আসন পেতে পারে।

রোববার সপ্তম ধাপের ভোটগ্রহণের মধ্য দিয়ে শেষ হয় ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচন। ৩৮ দিনের দীর্ঘ এই ভোট পর্ব শেষে কারা বসছেন দিলি­র মসনদে, তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে ২৩ মে পর্যন্ত। সেদিনই একসাথে ঘোষণা করা হবে ৫৪৩টি আসনের চূড়ান্ত ফলাফল