খামেনিসহ শীর্ষ কর্মকর্তাদের ওপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা, সম্পদ জব্দের হুমকি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরানের সর্বোচ্চ ধর্মীয় নেতা আয়াতুল্লাহ আলী খামেনিসহ দেশটির শীর্ষ কর্মকর্তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র।

সোমবার (২৪ জুন) এ সম্পর্কিত এক আদেশে সই করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করাসহ বেশ কয়েকটি বিষয়ের শোধ নিতে এ পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সাম্প্রতিক উত্তেজনার পেছনে আয়াতুল্লাহ খামেনিকে দায়ী করে তিনিসহ ইরানের এলিট ফোর্স রেভল্যুশনারি গার্ডের (আইআরজিসি) শীর্ষ আট কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। খুব শিগগিরই ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফের ওপরও নিষেধাজ্ঞা আসছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

এদিকে, এ নিষেধাজ্ঞাকে যুক্তরাষ্ট্রের ‘কূটনৈতিক অবজ্ঞা’ বলে মন্তব্য করেছেন ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। পরে এক টুইটে তিনি বলেন, ট্রাম্প প্রশাসন যুদ্ধের জন্য ব্যাকুল হয়ে পড়েছে।

গত সপ্তাহে মার্কিন গোয়েন্দা ড্রোন ভূপাতিত করার জবাবে ইরানের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। জানা যায়, শিয়া অধ্যুষিত দেশটিতে সামরিক অভিযানের অনুমতি দিলেও শেষ পর্যন্ত পিছু হটেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তবে, ইরানকে ‘শায়েস্তা করতে’ বড় ধরনের নিষেধাজ্ঞার কথা জানিয়েছিলেন তিনি। তেলসমৃদ্ধ দেশটির শীর্ষ নেতার ওপর নিষেধাজ্ঞার মাধ্যমে এ হুমকির বাস্তবায়ন শুরু করলো ট্রাম্প প্রশাসন।