শিরোনাম :

  • সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

বিশ্ব মানবতকে নাড়া দেওয়া আরও এক ছবি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ২০১৫ সালে সিরীয় বালক আয়লান কুর্দির কথা হয়ত কেউই ভূলে যান নি। তুরস্কের উপকূলে পাঁচ বছর বয়সী ওই শিশুর মরদেহ পড়ে থাকার ছবি বিশ্বজুড়ে তীব্র আলোড়ন তুলেছিল। সেই আয়লানের মতোই আরেকটি ছবি এবার নাড়া দিয়ে গেল বিশ্ব মানবতাকে। আরও একবার হাজার হাজার শরণার্থীদের দুর্দশার কথা মনে করিয়ে দিল আরও একটি ছবি।

মেক্সিকোর রিও গ্রান্ড নদীর তীরে কাদাপানির মধ্যে উপুড় হয়ে পড়ে থাকা বাবা ও মেয়ের মাথা বাবার টি-শার্টের ভেতরে ছোট্ট হাত দিয়ে বাবার গলা জড়িয়ে রাখা। সোমবার এ মর্মান্তিক ছবি তোলার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েলে ঝড় তুলেছে ছবিটি। এ ছবি দিয়ে ‘দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস’ মঙ্গলবার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

এল সালভাদর থেকে আসা অস্কার অ্যালবার্তো মার্টিনেজ রামিরেজ তার পরিবার নিয়ে রিও গ্রান্ড নদী পাড়ি দিয়ে মেক্সিকো থেকে যুক্তরাষ্ট্র যাওয়ার চেষ্টা করছিলেন। কিন্তু আন্তর্জাতিক সেতু বন্ধ থাকায় ঝুঁকিপূর্ণ পথ বেছে নিয়েছিলেন তিনি। রিও গান্ডে নদীতে পার হওয়ার চেষ্টা করেন তিনি। এ সময়ই ২৩ মাস বয়সের মেয়ে ভ্যালেরিয়াকে নিয়ে তীব্র স্রোতে মাঝনদীতে ভেসে গিয়ে মারা যান অস্কার। পরে নদীর কিনারায় এসে ভীড়ে তাদের লাশ।

সেই মর্মান্তিক দৃশ্যটিই ক্যামেরায় ধারণ করেছেন স্থানীয় সাংবাদিক জুলিয়া ল্য ডুউক। মেক্সিকোর স্থানীয় লা জর্নাডা পত্রিকায় ছবিটি প্রকাশ করেন তিনি। স্ত্রী তানিয়া ওই পত্রিকাটিকে জানায়, পুরো ঘটনাটি তার চোখের সামনেই ঘটেছে। স্বামী ও মেয়ের ডুবে যাওয়া তাকিয়ে তাকিয়ে দেখা ছাড়া তার আর কিছুই করার ছিল না।

গত রোববার দুপুরের পর পরিবারটি নদীতে নামে। সঙ্গে তাদের একজন পরিবারিক বন্ধু ছিলেন, ‍যিনি তানিয়াকে টেনে নিয়ে যাচ্ছিলেন। মার্টিনেজ মেয়েকে নিজের টি-শার্টের ভেতর ঢুকিয়ে পিঠে করে বয়ে নিয়ে যেতে থাকেন বলে জানান তার স্ত্রী।

কিন্তু নদীতে স্রোতের কারণে তানিয়া আর এগুতে সাহস না পেয়ে ফিরে যান। মেক্সিকো প্রান্তে নদীর পাড়ে ফিরে তিনি দেখেন তার স্বামী মেয়েকে পিঠে নিয়ে আমেরিকার প্রান্তে নদীর পাড়ে পৌঁছানোর লড়াই করছেন।

তানিয়া বলেন, “তীব্র স্রোতে মার্টিনেজ ক্লান্ত হয়ে পড়েছিলেন। তিনি নদীর পাড়ে প্রায় পৌঁছেই গিয়েছিলেন। কিন্তু পাড়ে পৌঁছানোর আগেই তারা ডুবে যায়।”

সোমবার মেক্সিকো কর্তৃপক্ষ তাদের মৃতদেহ উদ্ধার করে। এ ঘটনাকে দুর্ভাগ্যজনক বলে বর্ণনা করেছেন মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট আন্দ্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ অবরাডর। মঙ্গলবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “লোকজন যুক্তরাষ্ট্র পৌঁছাতে গিয়ে মরুভূমিতে এবং রিও গ্রান্ড নদীতে ডুবে মরছে।”

বাবা-মেয়ের এ ছবি প্রকাশের পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধি পরিষদের ডেমক্র্যাটরা সীমান্তে ভিড় করা অভিবাসন প্রত্যাশীদের অবস্থার উন্নয়নে সাড়ে চারশ কোটি মার্কিন ডলারের জরুরি মানবিক ত্রাণ সহায়তা বিল অনুমোদন করেছেন।