• মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট, ২০২২

ঐকমত্যের সরকার হতে যাচ্ছে কাবুলে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।

ঐকমত্যের সরকার হতে যাচ্ছে কাবুলে। আফগানিস্তানের রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করতে রাজধানী কাবুল ফিরেছেন তালেবানের সিনিয়র নেতা আমির খান মুত্তাকি। সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই, আবদুল্লাহ আবদুল্লাহসহ রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে তার আলোচনা করার কথা। এর মধ্যে আবদুল্লাহ আবদুল্লাহ এক সময় দেশটির সমঝোতা বিষয়ক পরিষদের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। একটি সূত্র বলেছেন, আফগানিস্তানে হতে যাচ্ছে সবার অংশগ্রহণমূলক সরকার। তালেবান নন, এমন রাজনৈতিক নেতাদেরকেও এই সরকারে ঠাঁই দেয়া হবে। তালেবানরা দেশ দখল করেছে দু’দিন হলো। কিন্তু এখনও সরকার গঠন না হওয়ার নেপথ্য কারণ হলো এটা। বার্তা সংস্থা এপি’কে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে অনলাইন আল জাজিরা।

আলোচনার বিষয়ে ভালভাবে জানেন এমন একজন কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করেছে এপি। রিপোর্টে বলা হয়েছে, সর্বশেষ যখন দেশ শাসন করেছে তালেবানরা, সে সময়ে উচ্চ শিক্ষা বিষয়ক মন্ত্রী ছিলেন আমির খান মুত্তাকি। সপ্তাহান্তে অতি গোপনে প্রেসিডেন্ট আশরাফ গণি পালিয়ে দেশ ছাড়ার আগে থেকেই আফগানিস্তানের রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করেছেন আমির খান মুত্তাকি। তিনি তাদের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেছেন। ওই সূত্রটি বলেছেন, এই আলোচনার উদ্দেশ্য আছে। তা হলো আফগানিস্তানে তালেবান নন, এমন নেতাদেরকে সরকারে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে। কাতারে অবস্থানরত তালেবান মুখপাত্র সুহেইল শাহিন এমন সরকারকে সবার অংশগ্রহণমূলক বা ঐকমত্যের সরকার বলে অভিহিত করেছেন। এসব আলোচনা সম্পর্কে জানেন এমন আফগানরা বলছেন, গত রাতেও বেশ কয়েক দফা আলোচনা হয়েছে। আশরাফ গণি দেশ ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই আলোচনা শুরু হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email