শিরোনাম :

  • সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

স্বাগতিকদের কাছে কোহলিদের প্রথম হার, সেমির স্বপ্ন বেঁচে থাকলো ইংলিশের

স্পোর্টস ডেস্ক: ভারতকে হারিয়ে সেমি ফাইনালে খেলার সম্ভাবনা জিইয়ে রাখলো ইংলিশরা। স্বস্তি ফেরালো ইংল্যান্ডে শিবিরে ।একই সঙ্গে কোহলিরা চলতি বিশ্বকাপে প্রথম পরাজয়ের স্বাদ পেল। আবার সেমিফাইনালে উঠার সমীকরণটাও কিছুটা সহজ হলো ইংলিশদের জন্য। ৮ ম্যাচে এখন তাদের পয়েন্ট দাঁড়ালো ১০। পাঁচ নম্বরে থাকা পাকিস্তানের চেয়ে তাদের পয়েন্ট ১ বেশি। দুদলেরই বাকি আছে একটি করে ম্যাচ। অপরদিকে ৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের ছয়ে থাকা বাংলাদেশ বাকি দুই ম্যাচে জিতলে সম্ভাবনা থাকবে মাশরাফিদেরও।এজবাস্টনে বিরাট কোহলির বিপক্ষে ৩১ রানের জয় পায় ইংলিশরা।

বড় টার্গেটে খেলতে নেমে শুরুটা একেবারেই ভালো হয়নি ভারতের। শূন্য রানেই ওপেনার লোকেশ রাহুলকে ফেরান ক্রিস ওকস। এরপর রহিত শর্মার সঙ্গে জঙ্গে জুটি গড়ে চাপ সামাল দেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ৬৬ রানে কোহলি ফিরে গেলেও রোহিত শর্মা তুলে নেন সেঞ্চুরি। তবে তারপর আর আগাতে পারেননি। ১০২ রানে ক্রিস ওকসের শিকার হন তিনি।রিশব পান্থ আর হার্দিক পান্ডিয়া জয়ের সম্ভাবনা বাড়ায়। তবে ৩২ রানে পান্থ এবং ৪৫ রানে পান্ডিয়ার বিদায়ের পর জয়ের সম্ভাবনা ফিকে হতে থাকে ভারতের। মহেন্দ্র সিং ধোনি শেষ দিকে ব্যাট করলেও দলকে জয় এনে দিতে পারেননি।এজবাস্টনে এর আগে টস জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে ভারতের সামনে বড় লক্ষ্য দাঁড় করায় ইংল্যান্ড। জনি বেয়ারস্টোর সেঞ্চুরিতে ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ৩৩৭ তোলে ইংলিশরা।অধিনায়কের আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্তকে সঠিকই প্রমাণ করেন দুই ওপেনার। ভুল আম্পায়ারিংয়ের সুবাদে বেঁচে যান রয়। ১১তম ওভারে হার্দিক পান্ডিয়ার বল জেসন রয়কে স্পর্শ করে উইকেটের পেছনে মহেন্দ্র সিং ধোনির হাতে চলে যায়। জোরালো আবেদনও করেন পান্ডিয়া। কিন্তু তাতে সাড়া দেননি আম্পায়ার। ব্যাটসম্যানের কোথায় রেগেছে তা নিশ্চিত ছিলেন না ধোনি। অধিনায়ক কোহলি খুবই কৌতূহলী উঠেন, রিভিউয়ের জন্য। তবে ধোনির কাছ থেকে ইতিবাচক সাড়া না পেয়ে শেষ পর্যন্ত রিভিউ নেয়া থেকে বিরত থাকেন।তবে ভারতের এই সিদ্ধান্তের জন্য আফসোস জন্ম নিতে সময় লাগেনি। টিভি রিপ্লেতে দেখা যায়, লেগ সাইডে পান্ডিয়ার শর্ট ডেলিভারিতে পুল মিস করেন রয়। এবং ধোনির গ্লাভসে যাওয়ার আগে বল রয়েরও গ্লাভস ছুঁয়ে যায়।লাইফ পাওয়ার পরের বলেই পান্ডিয়াকে ছক্কা মারেন রয়। বেয়ারস্টোর সঙ্গে মিলে রান তুলছেন ঝড়ের বেগে। শুরুর দিকে মোহাম্মদ সামি, জসপ্রিত বুমরাহদের খেলতে কিছুটা অসুবিধা হলেও কুলদীপ ইয়াদভ, জুজবেন্দ্র চাহালদের তুলোধোনা করছেন এ দুই ওপেনার। দারুণ শুরুর পর ফিরে যান ওপেনার জেসন রয়। জনি বেয়ারস্টোর সঙ্গে তার ১৬০ রানের জুটি ভাঙেন কুলদীপ ইয়াদভ। ৬৬ রানে তিনি ফেরান রয়কে।১১১ রানে জনি বেয়ারস্টোকে ফেরান মোহাম্মদ সামি। অধিনায়ক ইয়ন মরগান এসেই ফিরে যান। এরপর রানের চাকা কিছুটা শ্লথ হয়ে যায়। ৪৪ রান আসে জো রুটের ব্যাট থেকে। এরপর জস বাটলারকে সঙ্গে নিয়ে রানের গতি বাড়ানোর চেষ্টা করেন বেন স্টোকস। তবে বাটলার বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। ৮ বলে ২০ রান করে সাজঘরে ফেরেন তিনি। শেষ দিকে ঝড় তুলে ৫৪ বলে ৭৯ রান করেন স্টোকস।বল হাতে ৫ উইকেট তুলে নেন মোহাম্মদ সামি। একটি উইকেট নেন কুলদীপ ইয়াদভ।স্কোর:
ইংল্যান্ড ইংল্যান্ড ৩৩৭/৭ (৫০)

জেসন রয় ৬৬ (৫৭)
জনি বেয়ারস্টো ১১১ (১০৯)
জো রুট ৪৪ (৫৪)
ইয়ন মরগান ১ (৯)
বেন স্টোকস ৭৯ (৫৪)
জস বাটলার ২০ (৮)
ক্রিস ওকস ৭ (৫)
লিয়াম প্লাঙ্কেট ১* (৪)
জোফরে আর্চার ০* (০)বোলার
মোহাম্মদ সামি ১০-০-৭৯-৫
জসপ্রিত বুমরাহ ১০-১-৪৪-১
জুজবেন্দ্র চাহাল ১০-০-৮৮-০
হার্দিক পান্ডিয়া ১০-০-৬০-০
কুলদীপ ইয়াদভ ১০-০-৭২-১ভারত ৩০৬/৫ (৫০)
লোকেশ রাহুল ০ (৯)
রহিত শর্মা ১০২ (১০৯)
বিরাট কোহলি ৬৬ (৭৬)
রশভ পান্থ ৩২ (২৯)
হার্দিক পান্ডিয়া ৪৫ (৩৩)
এম এস ধোনি ৪২* (৩১)
কেদার যাদভ ১২* (১৩)বোলার
ক্রিস ওকস ১০-৩-৫৮-২
জোফরে আর্চার ১০-০-৪৫-০
লিয়াম প্লাঙ্কেট ১০-০-৫৫-৩
মার্ক উড ১০-০-৭৩-০
আদিল রশিদ ৬-০-৪০-০
বেন স্টোকস ৪-০-৩৪-০